Breaking News:
আমাদের সাইটে আপনাকে স্বাগতম।

অল্প বাজেটের মধ্যে সিম্ফোনি ব্রান্ডের একটি সেরা স্মার্টফোন i99

আসসালামু আলাইকুম। 

আশাকরি আল্লাহর রহমতে ভালো আছেন।

  আমিও ভালো আছি।

 আজ আমি আপনাদের জন্য নতুন একটি পোস্ট লিখতে বসলাম। 

এই পোস্টে আমি সত্যিকারের একটি রিভিউ তুলে ধরবো আপনাদের মাঝে। 

আপনারা অনেকেই আছেন ১ টি ভালো স্মাটফোন কিনতে চাচ্ছেন অল্প টাকার মধ্যে।

 কিন্তু তেমন ভালো কোনো স্মাট ফোন পচ্ছেননা তাই হতাশ।  


কোন ব্রান্ড সবচেয়ে ভালো?

ভালো ব্রান্ড গুলো ১ নং থেকে সাজানো হলোঃ

১। আইফোন (iPhone) 

২। স্যামসাং (Samsung) 

৩। অপ্পো (Oppo) 

৪। সিম্ফনি (Saymphony) 

৫। ভিভো (Vivo) 

৬। শাওমি (Redmi) 

৭। রিয়েলমি (Realme) 

৮। আইটেল (itel) 

৯। ওয়ালটন (walton) 


অল্প বাজেটের মধ্যে কোন ব্রান্ডের ফোন ভালো হবে?

অল্প বাজেটের মধ্যে সব থেকে সেরা ব্রান্ড হলো আমার মতে সিম্ফোনি।

১। সিম্ফনি ব্রান্ডের ফোনগুলো দেখতে খুবই সুন্দর ডিজাইনের। 

এই ব্রান্ডের ফোনগুলো দেখতে খুবই ভালো দেখায় যা অন্যান্য ব্রান্ডের অল্প বাজেটের ফোন দেখতে এতো সুন্দর হয়না সিম্ফনি ব্রান্ডের মতো। 

২। সার্ভিস ও ভালো পাওয়া যায়। এই কোম্পানির ফোনগুলো অনেক বছর ধরে ভালো সার্ভিস প্রদান করে। অল্প টাকার মধ্যে এর সার্ভিস অনেক ভালো পাওয়া যায় এ কথা সবার মুখেই শুনতে পাবেন।

 একটু জিঙ্গেস করে দেখুন সবার নিকট বা একটু খোঁজখবর নিয়ে দেখুন এই ব্রান্ড সম্পর্কে এবং ইউজার স্যাটিসফিকেশন জেনে নিন।

 যে এ ব্রান্ডটির ফোন গুলো কেমন সার্ভিস দিচ্ছে।


৩। ফোনের পারফরমেন্স ও ভালো। 

ফোনের পারফরমেন্স যদি জানতে চান ব্যবহারকারীদের কাছে তাহলে দেখবেন তারা খুব পজিটিভ বলবে। 


আমি যে ফোনটির রিভিউ লিখতে এ পোস্ট শুরু করেছি সেই ফোনটির নাম হলো সিম্ফনি আই নিরানব্বই (Symphony i99) 

 প্রথমেই বলবো ফোনটির ফিচারস নিয়েঃ

১। র্যাম ২জিবি 

২। ইন্টারনাল মেমোরি ১৬ জিবি

৩। এন্ড্রোয়েড ভার্সন ১০ 

৪। ফন্ট ক্যামেরা ৮ মেগাপিক্সেল 

৫। ব্যাক ক্যামেরা ১৩+২ মেগাপিক্সেল 

৬। ব্যাটারি ৩,৫০০ mAh

৭। প্রসেসর ১.৬ অক্টা কোর

৮। ডিসপ্লে ৬.০৯ ইন্চি

৯। ফিঙ্গার প্রিন্ট আছে।

১০। ফেস আনলক আছে। 

১১। ডুয়েল সিম এবং ৪ জি। 

ফোনটির রিভিউঃ 

অল্প বাজেটের মধ্যে আপনি সব ধরনের ফিচারস রয়েছে এ ফোনটিতে। 

আমি নিজে এ ফোনটি ব্যবহার করে ফোনটির রিভিউ আপনাদের জন্য লিখতে বসেছি। 

আমি সিম্ফোনি আই নিরানব্বই এ ফোনটি কিনেছি জানুয়ারির ৩ তারিখে এ বছেরর, প্রায় ৬.৫ মাস হয়ে গেলো। এরপরে আমি লিখতে যাচ্ছি এর রিভিউ।

 আমার বাজেট ছিলো অল্প এর মধ্যে যখন একটি ফোন খোজা শুরু করলাম তখন দেখতে পেলাম।

 এ ফোনটির সাথে অন্যান্য ফোনের কম্পেয়ার করে এই বাজেটের মধ্যে এই ফোনটিই বেস্ট হবে আমার জন্য। 

 

যাইহোক, ফোনটি নেওয়ার পর থেকে আমি এটি রাফ ইউজ করতেছি।

 আলহামদুলিল্লাহ আমি বেশ ভালোই সার্ভিস পাচ্ছি এর থেকে। 

বলে রাখি আমি একজন ব্লগার তাই আমি দিনে এবং রাত মিলিয়ে প্রায় ১০ ঘন্টা প্রতিদিন ব্যবহার করি।

কখনো ইউটিউব দেখি, কখনো গুগল সার্চ করি, কখনো আর্টিকেল লিখি এভাবেই প্রতিদিন একে ব্যবহার করি।  

Symphony i99 ফোনটির ব্যাটারি ব্যকআপ আমি ৫-৬ ঘন্টা পাই। 

আবার মাঝে মাঝে ৪-৫ ঘন্টাও পাই। 

আমি নেট ব্যবহার করি তাই চার্জের ব্যকআপ আমি মোটামুটি পাই তবে আমি এতেই সন্তুষ্ট।

 আপনারা যদি ফেসবুক আর গান শুনেন তাহলে আরো বেশী পাবেন। 

 আর হ্যা ফোনটির পারফরমেন্স আগে মানে নতুন অবস্থায় যেমন ছিলো এখনো তেমনি আছে কিন্তু ফোনটির ক্যামেরার সার্ভিস আগে যেমন ছিলো এখন তেমন নেই। 

 ফটোগ্রাফি করার উদ্দেশ্যে যদি ফোনটি নিতে চান তাহলে মোটেই আপনার নেওয়া উচিত হবেনা, 

১৫ মেগাপিক্সেল ক্যামেরা হিসেবে এই ক্যামেরার পারফরমেন্স ৮ মেগাপিক্সেল ক্যামেরার মতো। 


পোস্ট টি এখানেই সমাপ্তি। 

ভালো থাকুন, সুস্থ থাকুন।

 আমাদের সাইটের সাথেই থাকুন ধন্যবাদ। 


0/Post a Comment/Comments