আসসালামু আলাইকুম। 

আশাকরি আল্লাহর রহমতে সবাই ভালো আছেন। আমিও আলহামদুলিল্লাহ ভালো আছি। 

আজ আমি আপনাদের জন্য লিখতে বসেছি নতুন একটি পোস্ট, আশাকরি পোস্ট টি সবার উপকারে আসবে ইনশাআল্লাহ। 

পোস্ট টি কি নিয়ে লিখতে চাচ্ছি তা তো আপনারা বুঝতেই পারছেন পোস্টের টাইটেল দেখে। 


আজকের পোস্ট টি হলো অল্প মেগাবাইটের ১টি ইন্টারনেট ব্রাউজার এ্যাপ নিয়ে। 

এই পোস্টে আমি আপনাদেরকে জানাবো, অল্পমেগাবাইটের ইন্টারনেট ব্যবহারের সুবিধা এবং অসুবিধা এবং অল্পমেগাবাইটের এ্যাপ কেন করবেন।

 ১ টি সেরা অল্প মেগাবাইটের ইন্টারনেট ব্রাউজার এ্যাপ এবং এর রিভিউ।

 তাহলে চলুন শুরু করা যাক পোস্ট টি পড়া.........


অল্প মেগাবাইটের ইন্টারনেট ব্রাউজার ব্যবহারের সুবিধাঃ

১। ফোনের র্যাম যদি কম হয়ঃ

আপনার ফোনের র্যাম যদি অল্প হয়, যেমন হতে পারে ৫১২ র্যাম।

হয়তো বলতে পারেন এতো কম র্যামের ফোন এখন কেউ ব্যবহার করেননা।

 কিন্তু হ্যা এখনো অনেকেই ব্যবহার করে এই যে আমি যে ফোনটি দিয়ে এখন লিখতেছি এটি ক্রয় করার আগে ও ৫১২ এমবি র্যামেরই ফোন চালাতাম।

 এখনো ফোনটি আছে এখনো মাঝে মাঝে ব্যবহার করি। আসলে সবার তো সামার্থ নাই বেশী দামের ফোন চালানোর অর্থাৎ বেশী র্যামের ফোন চালানোর। 


বিশেষ করে যারা স্টুডেন্টস রয়েছে তাদেরকে ফোন দিতে রাজী নয়।

পরিবার কিন্তু ছাত্রছাত্রীরা টিফিনের টাকা বাচিয়ে বা উপবৃত্তি টাকা পেয়ে তা দিয়ে হাজার চারে টাকার মধ্যে একটি স্মাট ফোন কিনে আর এই বাজেটে ৫১২ মেগাবাইটের ফোনই জুটে। 

এই র্যামের ফোনগুলিতে বেশী মেগাবাইটের এ্যাপস গুলো স্মুথলি চলেনা।

 ফোন হ্যাং করে বা আটকে আটকে পড়ে এমন অবস্থা, আর নেট চালানোর জন্য বেশী মেগাইটের এ্যাপ তো ইউজ করতে অনেক সমস্যা দেখা যায়।

তাই অল্প মেগাবাইটের এ্যাপ ব্যবহার করা সবচেয়ে ভালো। 


২। ফোনের ইন্টারনাল মেমোরি অর্থাৎ ROM কম হলেঃ

 আপনি বেশীরভাগ অল্পবাজেটের ফোনগুলোতে দেখবেন এই বাজেটের ফোনে, ফোন মেমোরি কম থাকে। তাই ফোন মেমোরি কম থাকায় ফোনে বেশী মেগাবাইটের এ্যাপ ইনস্টল দেওয়ার পরে সেটি কিছুদিন ব্যবহার করার পরে Browser chace সহ এ্যাপটিতে ফোন মেমোরির অনেক জায়গা দখল করে রেখেছে।

 যার ফলে ফোন স্লো কাজ করবে এবং বেশী এ্যাপ ইনস্টল করা যাবেনা। 

তাই অল্প মেগাইটের এ্যাপ এবং অল্প মেগাবাইটের ব্রাউজার ইনস্টল করলে ফোনের রম অর্থাৎ ইন্টারনাল মেমোরির জায়গা কম দখল করবে।

৩। ফোন দ্রুত ও ফাস্ট হয়ঃ 

অল্পমেগাবাইটের এ্যাপ বা ব্রাউজার যদি ফোনে ব্যবহার করেন তাহলে ফোন দ্রুত কাজ করবে।


অল্প মেগাবাইটের ইন্টারনেট ব্রাউজার ব্যবহারের সুবিধাঃ

অল্প মেগাবাইটের এ্যাপে সমস্যা একটাই আমার মনে হয় তা হলোঃ

 এই অল্প মেগাবাইটের ব্রাউজার এ্যাপগুলোতে ফিচারস কম থাকে। বেশী ফিচারস থাকেনা তাই অল্পমেগাবাইটের এ্যাপে যেমন সুবিধা আছে তেমনি অসুবিধা ও আছে। 

আমার দেখা অল্প মেগাবাইটের সবচেয়ে সেরা একটি ইন্টারনেট ব্রাউজার।

আমার দেখা সবচেয়ে সুন্দর একটি ব্রাউজার, আপনাদের সাথে শেয়ার করবো। 

এ্যাপটির নাম হলো এক্স ব্রাউজার। ব্রাউজারটির নাম প্লেস্টোরে ইংরেজীতে xbrowser লিখে সার্চ করলেই পেয়ে যাবেন। 



এই ব্রাউজারটি অনেকটা ডেস্কটপ ব্রাউজারের মতো, তাই ব্রাউজারটি বেশী সুন্দর দেখায়। 

এক্স ব্রাউজারটি অল্প মেগাবাইটের মধ্যে খুবই সুন্দর একটি ব্রাউজার। 


Share To:

Post A Comment:

0 comments so far,add yours