আজকে আমি আপনাদের মাঝে বিস্তারিত আলোচনার চেষ্টা করবো Blogger Vs WordPress নিয়ে এবং আপনার জন্য কোনটি বেস্ট হবে, কোনটি সিলেক্ট করবেন তা এই পোস্ট টি সম্পুর্ন পড়ার পড়েই বুঝতে পারবেন। 


Blogger হলো গুগল ডটকমের একটি প্লাটফর্ম, পৃথিবীর সর্বশ্রেষ্ঠ এবং জনপ্রিয় সার্চ ইন্জিন Google কে চিনে না এমন কোনো ইন্টারনেট ইউজারকে খুজে পাওয়া যাবেনা। এই সার্চ ইন্জিনের অধীনে অর্থাৎ এই মালিকের আরো অন্যান্য অনেক প্লাটফর্ম রয়েছে ইন্টারনেটে যেমনঃ ইউটিউব, ব্লগার, গুগল, এডসেন্স, এছাড়াও অনেক এ্যাপস রয়েছে যেগুলো কোটি কোটি মানুষ ব্যবহার করে উপকৃত হচ্ছে। পরিচিতি এখানেই শেষ করি।  Blogger দিয়ে একটি ওয়েবসাইট করতে টাকা পয়সা লাগেনা বিনামূল্যেই একটি ওয়েবসাইট তৈরী করে ইনকামও করা যায়।

ব্লগার, ওয়ার্ডপ্রেস

Blogger ব্যবহারের সুবিধাগুলোঃ

  1. ব্লগার দিয়ে ওয়েবসাইট তৈরি করার সময় একটি ফ্রি সাবডোমেইন পাবেন যেটি লাইফটাইম বিনামূল্যে ব্যবহার করতে পারবেন। 
  2. এই ফ্রি সাবডোমেইন টি দিয়ে আপনি এডসেন্স এপ্রুভাল ও পাবেন।
  3. ব্লগার সাইটটিতে আপনি চাইলে টপ লেভেল অর্থাৎ কাস্টম ডোমেইন ও চাইলে যুক্ত করতে পারবেন।
  4. এখানে আপনাকে, আপনার সাইটে ভিজিটর আসার জন্য ব্রান্ডউইথের চিন্তা করতে হবেনা, আমার জানামতে ডেইলি ১০কে প্লাস ভিজিটর আসে ব্লগার সাইটে এমন খবর ও আছে তবুও সাইটের কোনো সমস্যা হচ্ছেনা তারমানে আপনাকে ব্রান্ডউইথ নিয়ে প্যারা নাই, গুগল ভাইই ব্রান্ডউইথ দিচ্ছে ফ্রিতে।
  5. হোস্টিঃ আমার জানামতে পরাগ ভাইয়ের একটি ব্লগার সাইটে ৩০০ প্লাস পোস্ট আছে কিন্তু কোনো সমস্যা ফেস করছেনা তার মানে হোস্টিং নিয়েও চিন্তা করতে হবেনা।
  6. ব্লগার সাইট হ্যাকাররা হ্যাক ও করতে পারবেনা, কারন ব্লগার স্বয়ং গুগলের ভাইর প্লাটফর্ম এটির পাহারায় গুগল ভাইর লোকজন থাকে তাই ব্লগার সাইট হ্যাক হচ্ছে কারো এমন সংবাদ এখনো শুনিনি।


Blogger ব্যবহারের অসুবিধাঃ 

  1. ব্লগার সাইটে প্লাগিন ব্যবহার করা যায়না যার ফলে সবকিছু কোডিং করে করতে হয় আলাদা ফিচারস যুক্ত করতে হলে। 
  2. ব্লগার সাইটের এডসেন্সের এ্যাডস যেনো ভিজিটররা বেশী ক্লিক না করতে পারে সেই ব্যাবস্তা করার জন্য প্লাগিন ব্যাবহার করা যায়না।
  3. ভিজেটররা ব্লগার সাইটে রেজিস্ট্রেশন লগইন করতে পারেনা।
  4. পোস্টে কমেন্ট করলে নোটিফিকেশন সিস্টেম নেই।


আমার মতামতঃ 

যেহুতু এটি একটি ফ্রি Blogger প্লাটফর্ম এখান থেকে যা যা সুবিধা পাচ্ছেন এটাই অনেক অনেক বেশী মনে করি আমি। আপনাকে ব্রান্ডউইথ, হোস্টিং, নিরাপত্তা, এই মেইন ৩টি জিনিস নিয়ে আপনাকে ভাবতে হচ্ছেনা; টাকা ও খরচ করার দরকার হচ্ছেনা। আপনার সাইটে যে সময় ১০ হাজার বা ৫ হাজার ডেইলি পেজ ভিউস হবে তখন আপনি আপনার সমস্ত কন্টেন্ট গুলোর ব্যাকআপ নিয়ে ওয়ার্ডপ্রসে চলে যাবেন। আমি বলবো আপনি যদি ব্লগিং করতে চান তাহলে আপনার শুরুটা Blogger দিয়েই করুন।


WordPress  ওয়ার্ডপ্রেস হলো একটি জনপ্রিয় সিএমএস, বর্তমানে অনেকেই ওয়ার্ডপ্রেস কন্টেন্ট ম্যানেজমেন্ট সিস্টেম ব্যবহার করে ওয়েবসাইট তৈরী করতেছে, ব্লগিং সাইট থেকে শুরু করে ডাউনলোড সাইট প্রযন্ত ওয়ার্ডপ্রেস সিএমএস ব্যবহার করে তৈরী হচ্ছে।


WordPress ব্যাবহারের সুবিধাঃ 

  1. প্লাগিন ব্যবহার করে খুব সহজেই সাইটের ডিজাইন এন্ড ডেভলোপমেন্ট করা যায়।
  2. ভিজিটররা যাতে গুগল এডসেন্সের এ্যাডে ইনভেলিড ক্লিক না করতে পারে সেই সিস্টেম করা যায়, প্লাগিন ব্যবহার করে। 
  3. সাইটে ভিজিটররা রেজিস্ট্রেশন ও লগইন করতে পারবে।
  4. ওয়ার্ডপ্রেস সাইটে মাল্টিপল অথর হয়ে খুব সহজেই সাইটটিতে পোস্ট করে উন্নত করা যায়।


WordPress সাইট ব্যবহারের অসুবিধাঃ 

  1. ওয়ার্ডপ্রেসে আপনি সাইটে যতো পোস্টের সাথে পিকচার, অডিও, ভিডিও এ্যাটাচ করবেন ততই আপনার হোস্টিংয়ের ঝুলি বড় হতে থাকবে, আর এই বোঝা আপনাকে হোস্টিং প্যাকে দেখে রাখতে হবে, কখনো হোস্টিং প্যাকেজ বড় করতে হবে।
  2. ব্রান্ডউইথঃ প্রত্যেক হোস্টিং প্যাকেজের সাথেই নির্দিষ্ট একটি ব্রান্ডউইথ লিমিট থাকে যেমনঃ মান্থলি ১০ জিবি, ২০ জিবি, ৩০ জিবি ইত্যাদি ইত্যাদি ; আপনার সাইটের ভিজিটর ভিজিট করার জন্য এই ব্রান্ডউইথের প্রয়োজন হবে, ভিজিটর বৃদ্ধি পাওয়ার সাথে ব্রান্ডউইথ ও বাড়াতে হবে হোস্টিং প্যাকেজ আপগ্রেড করে।
  3. নিরাপত্তাঃ আপনার সাইটটি যেনো হ্যাকাররা হ্যাক করতে না পারে এজন্য আপনাকে আপনার সাইটের নিরাপত্তার দ্বায়িত্ব নিজেরই নিতে হবে।


আমার মতামতঃ আপনার সাইটটিতে যদি বেশী ভিজিটর থাকে তাহলে আপনি ওয়ার্ডপ্রেসে আসতে পারেন ব্লগার বা জুমলা বা পিএইচপি থেকে।  আর যদি আপনি নতুন শুরু করতে চান, ওয়ার্ডপ্রস সম্পর্কে ও এক্সপার্ট নন তাহলে শুরুটা জামেলাবীহীন ব্লগার দিয়ে শুরু করুন ওয়ার্ডপ্রেস না দিয়ে শুরু করে। আর আপনার পকেটে যদি প্রযাপ্ত পয়সা থাকে তাহলে ডেপলোপার নিযুক্ত করে ওয়ার্ডপ্রেস দিয়ে শুরু করতে পারেন, কিন্তু সবথেকে ভালো হয় ব্লগার দিয়েই শুরু করা।  এখন আপনার ইচ্ছে আপনি কি দিয়ে শুরু করবেন।


 

Share To:

Administrator

Post A Comment:

0 comments so far,add yours